বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০   অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭   ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৭৬

উখিয়ায় স্থানীয়দের জন্য ‘সেভ দ্য চিলড্রেন’র কৈশোরবান্ধব কেন্দ্র

প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০২০  

সেভ দ্য চিলড্রেনের উদ্যোগে উখিয়া উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডে যাত্রা শুরু করেছে একটি কৈশোরবান্ধব কেন্দ্র (অ্যাডোলেসেন্ট ফ্রেন্ডলি স্পেস)।

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) দুপুরে সেভ দ্য চিলড্রেনের (বাংলাদেশ) কান্ট্রি ডিরেক্টর অনো ভ্যান মানেনের উপস্থিতিতে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ আমিনুল আহসান খান ফিতা কেটে এবং বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে এই কেন্দ্রের শুভ উদবোধন ঘোষণা করেন।

মোহাম্মদ আমিনুল আহসান খান বলেন, “সেভ দ্য চিলড্রেন বাংলাদেশ সরকারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছে। একটি প্রতিষ্ঠানের সফলতা নির্ভর করে সেই প্রতিষ্ঠানের সাথে যারা জড়িত তারা সেখান থেকে কতটুকু শিখতে পারছে তার উপর। এই কেন্দ্র থেকে যতটুকু তোমাদের (শিশুদের) দেওয়া হবে, তোমরা কিশোররা যদি ততটুকু নিতে পারো, উপভোগ করতে পারো এবং একজন অপরজনকে সহযোগিতা করতে পারো তাহলে তা তোমাদের মানসিক বিকাশ এবং উন্নতিতে সহায়তা করবে। আমি আশা করবো এই কেন্দ্রটি এবং এর সুযোগ-সুবিধাগুলো তোমরা ভালোভাবে কাজে লাগাবে”।

তিনি নতুন এই কেন্দ্রের জমি দাতা হাজী আবদুস সালামকেও ধন্যবাদ জ্ঞাপণ করেন।

হাজী আবদুস সালাম সেভ দ্য চিলড্রেনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, “এখানে এসে আমার এলাকার শিশুরা অনেক কিছু শিখতে পারবে বলে আমি আশাবাদী। তাই সেভ দ্য চিলড্রেনের এই উদ্যোগের সাথে সামিল হতে পেরে আমার ভালো লাগছে”।

সেভ দ্য চিলড্রেনের কান্ট্রি ডিরেক্টর অনো ভ্যান মানেন বলেন, “এলাকাবাসীর সহায়তা বিশেষ করে স্থানীয় প্রশাসন এবং জমিদাতার সহায়তায় এই কেন্দ্রটি তৈরি করা সম্ভব হয়েছে। স্থানীয় শিশুরা এখান থেকে অনেক কিছু শিখতে পারবে, মন খারাপের সময় বন্ধুদের সাথে সময় কাটাতে পারবে, নিজেদের সহযোগিতা করতে পারবে যা তাদের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে”।

উল্লেখ্য, সেভ দ্য চিলড্রেন স্থানীয় জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে খাদ্য নিরাপত্তা ও জীবিকায়ন, স্বাস্থ্য ও শিক্ষার পাশাপাশি শিশু সুরক্ষা বিষয়েও কাজ করছে। এরই ধারাবাহিকতায় সুইডেন সরকারের (সিডা) আর্থিক সহযোগিতায় উখিয়া উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে মোট আটটি কৈশোর ক্লাবসহ একটি কৈশোরবান্ধব কেন্দ্র পরিচালনা করছে।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর