সোমবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০   আশ্বিন ৫ ১৪২৭   ০৩ সফর ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
১০৩

কক্সবাজার সদরে খাদ্য সহায়তা প্রদান ডব্লিউএফপি’র

প্রকাশিত: ২ আগস্ট ২০২০  

১ আগস্ট ২০২০ (কক্সবাজার) পবিত্র ঈদ-উল-আযহার আগে কক্সবাজার সদরে কোভিড-১৯ এর কারণে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোতে খাদ্য বিতরণ করে চলেছে ডব্লিউএফপি। কোভিড-১৯ এর ফলে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ কক্সবাজারের পরিবারগুলোকে ডব্লিউএফপি-এর চলমান সহায়তার একটি অংশ হিসেবে এই খাদ্য বিতরণ করা হচ্ছে।

বাজারে খাদ্যসামগ্রীর দাম বেড়ে যাওয়া ও দাম ওঠা-নামা করাতে কোভিড-১৯ ও এর অর্থনৈতিক প্রভাবের ফলে কক্সবাজার সদর উপজেলায় শহরে বসবাসকারী জনগণ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

বাংলাদেশে ডব্লিউএফপি-এর প্রতিনিধি রিচার্ড রেগান বলেন, “কক্সবাজারের জনগোষ্ঠীর এক বড় অংশ পর্যটন খাত ও দিনমজুরীর কাজের ওপর নির্ভরশীল। আর এই দুটি খাতই কয়েক মাসের জন্য পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় যা এখনো পুরোপুরিভাবে আগের অবস্থায় ফিরে আসেনি।” তিনি আরও বলেন, উপার্জনজনিত এই ক্ষতি তাদের খাদ্য নিরাপত্তাকে সরাসরিভাবে প্রভাবিত করতে পারে। আর তাই, চলমান সোস্যাল সেফটি নেট কর্মসূচির আওতায় যেসব মানুষ সহায়তা পাচ্ছেন না, তাদেরকে সহায়তার লক্ষ্যে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাথে আমরা একসাথে কাজ করে যাচ্ছি।”

কক্সবাজারের ডেপুটি কমিশনার-এর অনুরোধে, গত ৮ জুন ২০২০ তারিখে ডব্লিউএফপি স্পেশাল সাপোর্ট ফর দ্যা হোস্ট কমিউনিটি (এসএসএইচসি) কার্যক্রম শুরু করে, যার লক্ষ্য ছিলো কোভিড-১৯ এর কারণে ক্ষতিগ্রস্থ কক্সবাজার সদরে বসবাসরত ৬২,০০০ মানুষসহ কক্সবাজার জেলার ৫ লক্ষ-এর বেশি ঝুঁকিতে থাকা মানুষকে খাদ্য ও অর্থসহায়তা দেওয়া।

পরিবারগুলো প্রাথমিকভাবে ৬০ কেজি করে চাল পেয়েছে। পরবর্তীতে, আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে তাদেরকে অর্থসহায়তা দেওয়া হবে।

কোভিড-১৯ মহামারির সাথে লড়াই করার জন্য গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টায় সহায়তার পাশাপাশি ডব্লিউএফপি করোনাভাইরাসের অর্থনৈতিক প্রভাবের দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ শহরে বসবাসরত জনগণকে সহায়তা করবে, যা সামনে আরও বৃদ্ধি পাবে।

কক্সবাজারের ডেপুটি কমিশনার-এর অনুরোধে, গত ৮ জুন ২০২০ তারিখে ডব্লিউএফপি স্পেশাল সাপোর্ট ফর দ্যা হোস্ট কমিউনিটি (এসএসএইচসি) কার্যক্রম শুরু করে, যার লক্ষ্য ছিলো কোভিড-১৯ এর কারণে ক্ষতিগ্রস্থ কক্সবাজার সদরে বসবাসরত ৬২,০০০ মানুষসহ কক্সবাজার জেলার ৫ লক্ষ-এর বেশি ঝুঁকিতে থাকা মানুষকে খাদ্য ও অর্থসহায়তা দেওয়া।

পরিবারগুলো প্রাথমিকভাবে ৬০ কেজি করে চাল পেয়েছে। পরবর্তীতে, আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে তাদেরকে অর্থসহায়তা দেওয়া হবে।

কোভিড-১৯ মহামারির সাথে লড়াই করার জন্য গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টায় সহায়তার পাশাপাশি ডব্লিউএফপি করোনাভাইরাসের অর্থনৈতিক প্রভাবের দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ শহরে বসবাসরত জনগণকে সহায়তা করবে, যা সামনে আরও বৃদ্ধি পাবে।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর