বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০   কার্তিক ৬ ১৪২৭   ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৭৫৭

কষ্ট ও ব্যয় কমিয়ে, ডায়াবেটিসের স্মার্ট চিকিৎসায় ‘ইনসুলিন প্যাচ’

স্বাস্থ্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০ জুলাই ২০১৯  

দিন দিন ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এর নিরাময়ের জন্য ওষুধ ও ইনসুলিন ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা। কিন্তু সবক্ষেত্রেই ডায়াবেটিস চিকিৎসার প্রধানতম ওষুধ হল ইনসুলিন। এখন পর্যন্ত ইনসুলিন সাধারণত ইনজেকশন হিসেবে পাওয়া যাচ্ছে, যা অধিকাংশ রোগী সহজভাবে মেনে নিতে পারেন না। এমন অনেক ক্ষেত্র আছে যখন ইনসুলিনের কোনো বিকল্প থাকে না। তবে এই ইনসুলিন দিয়ে ডায়াবেটিসের চিকিৎসা করা অনেক কষ্ট ও ব্যয়বহুল হয়ে থাকে। যা সবার ক্ষেত্রে চালানো সম্ভব হয় না।

গবেষণা জানাচ্ছে, আকর্ষণীয় ও ইনজেকশন নয় এমন ইনসুলিন হাতের নাগালে এসে যাচ্ছে। এটি হল স্মার্ট প্যাচ। এটি তৈরি করা হয়েছে যা ত্বকের ওপরে স্থাপন করা থাকলে ওটা রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা আপনা আপনি মেপে প্রয়োজন মতো ইনসুলিন নিঃসরণ করবে। বিজ্ঞানীদের আশা, এর ফলে কোটি কোটি ডায়াবেটিসের রোগী কষ্টদায়ক ইনজেকশন নেয়ার ঝক্কি-ঝামেলা থেকে মুক্ত হয়ে চিকিৎসা নিতে পারবেন।

অত্যন্ত উচ্চপ্রযুক্তির এই স্মার্ট প্যাচ অনেকটা প্লাস্টারের মতো চামড়ার সঙ্গে লেগে থাকবে এবং এটি আকারে ডাক টিকিটের মতো ছোট। এর সঙ্গে যুক্ত আছে শত শত সূক্ষ্ম সূঁচ বা মাইক্রোনিডল। মাইক্রোনিডলের সঙ্গে ইনসুলিন এবং গ্লুকোজের মাত্রা নির্ণয়ের জন্য এনজাইম সংযুক্ত থাকবে। এ প্রযুক্তির মূল বিষয় হচ্ছে ছোট ছোট বুদবুদের মতো ‘ইনটেলিজেন্ট ন্যানো-পার্টিকল।’ এই বুদবুদের মধ্যে ইনসুলিন এবং গ্লুকোজের মাত্রা নির্ণয়ের জন্য এনজাইম সংরক্ষিত থাকবে। রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বেড়ে গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ‘ইনটেলিজেন্ট ন্যানো-পার্টিকল’ তা শনাক্ত করবে এবং প্রয়োজন মতো ইনসুলিন নিঃসরণ করবে। একটি স্মার্ট প্যাচ এক নাগাড়ে কয়েক দিন ব্যবহার করা যাবে। প্রয়োজন অনুসারে সময়মতো তা বদলে নেয়া যাবে।
 
নর্থ ক্যারোলিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকগণ প্রাথমিকভাবে এটা ইঁদুরের শরীরে পরীক্ষা করে সফল হয়েছেন। অচিরেই এটা মানুষের শরীরে ব্যবহার করা হবে। সকলেরই আশা এটা সফল হলে ডায়াবেটিসে চিকিৎসা একটি নতুন স্তরে উন্নীত হবে।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর