শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ২৩ ১৪২৭   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৬৪

গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে সেনাবাহিনী

প্রকাশিত: ৪ জুলাই ২০২০  

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের জন্য বাংলাদেশ সরকার ও সেনাবাহিনী বছরব্যাপী বিভিন্ন কল্যাণমুখী কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের আপামর জনসাধারণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার জন্য বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।

এরই ধারাবাহিকতায় সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের নির্দেশনায় জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ৪৬ স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেড গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের কর্মসূচী হাতে নিয়েছে। এই কর্মসূচীর আওতায় ৪৬ স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেড ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায় ১৫ জুন হতে নির্দিষ্ট দিনগুলোতে গর্ভবতী মাদের জন্য স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করে আসছে।

আইএসপিআর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, প্রতিটি ক্যাম্পেইন স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে আয়োজন করা হচ্ছে। বেশি সংখ্যক গর্ভবতী মায়েদের সেবা প্রদানের জন্য নির্ধারিত তারিখের আগে সাধারণ জনগণকে সময়সূচী অবগত করা হয়েছে। এই কর্মসূচীর আওতায় বৃহস্পতিবার ইডেন মহিলা কলেজ, আজিমপুর এলাকায় ১০৯ জন গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়েছে।

এর আগে ১৫ জুন ঢাকা মহাখালী এলাকায়, ১৮ জুন মিরপুর-১০ এলাকায়, ২১ জুন মিরপুর-১১ এলাকায়, ২৭ জুন হাজারীবাগ এলাকায় এবং ৩০ জুন জুরাইন এলাকায় মেডিক্যাল ক্যাম্প পরিচালনা করা হয়েছে। আগামী ৬ জুলাই এবং ৯ জুলাই পরবর্তী ক্যাম্প আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে।

৪৬ স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেডের অধীনস্থ ১৬ বীর এর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে পরিকল্পিতভাবে কর্মসূচিটি পরিচালনা করা হয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের সহায়তায় গত ২/৩ দিন ধরে প্রচারণা চালানো হয়েছে। আগত মায়েদের প্রাথমিক স্ক্রিনিং এর পর সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে আরামদায়ক বসার ব্যবস্থা ছিল। গর্ভবতী মা ও তাদের সঙ্গীসহ সকলের জন্য ছিল সুপেয় পানি ও হালকা খাবারের আয়োজন।

সুচিকিৎসার পাশাপাশি সুপরিকল্পিত ব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণকারী সবার মাঝে ছিল সন্তুষ্টির ছাপ।

এই কার্যক্রমের আওতায় ৬১ ফিল্ড অ্যাম্বুলেন্স ও ঢাকা সিএমএইচ-এর স্ত্রী ও ধাত্রীবিদ্যা বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা প্রয়োজনীয় চিকিৎসা প্রদান করেছেন। গর্ভবতী মায়েদের ব্লাড প্রেশার, ব্লাড সুগারসহ বিভিন্ন আনুষঙ্গিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে প্রয়োজনীয় ওষুধ ও প্রয়োজনে টিকা দেয়া হয়।

এছাড়া এই মেডিকেল ক্যাম্পেইন এ আগত মাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে বিনামূল্যে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান করা হয়েছে। পাশাপাশি আগামী দিনগুলোতে মেনে চলার জন্য বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা গর্ভবতী মায়েদের বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ প্রদান করেছেন।

মা ও শিশুর সুন্দর ভবিষ্যত ব্যবস্থাপনার জন্য একটি ফোল্ডারের মাধ্যমে ব্যবস্থাপত্রসহ সমস্ত কাগজপত্র প্রদান করা হয় যা দীর্ঘদিন ব্যবহার করা যাবে। এতে মা ও শিশুর জন্য বিভিন্ন নির্দেশনা ও টিকা প্রদানের ছক রয়েছে যা ভবিষ্যতের জন্য অত্যন্ত সহায়ক হবে। শুধু তাই নয়, আগত মায়েদের মাঝে কেউ সন্দেহজনক করোনা আক্রান্ত থাকলে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে তাদের কোভিড টেস্ট করা হবে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর