বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০   কার্তিক ৬ ১৪২৭   ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৩০৩

চ্যানেল আইয়ের অস্ত্রের লাইসেন্স তদন্তে বাধা নেই

প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর ২০১৮  

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আই সেন্টারে নিয়োজিত ব্যক্তিদের নামে ইস্যু করা আগ্নেয়াস্ত্র, আগ্নেয়াস্ত্র ক্রয়ের রশিদ ও আগ্নেয়াস্ত্রসহ দুদক কার্যালয়ে উপস্থিত না হওয়ার জন্য জারি করা রুল খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। ফলে নোটিশের কাযক্রম অর্থাৎ তদন্ত চলতে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।

এ সংক্রান্ত এক রুলের শুনানি নিয়ে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী একেএম ফজলুল হক। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না। রিটকারীর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এসএম রিফাজ উদ্দিন।

এর আগে প্রতিষ্ঠানের সব সিকিউরিটি গার্ডের (কর্মরত) আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স, অস্ত্র ক্রয়ের রশিদ ও অস্ত্র নিয়ে ২০১৭ সালের ২০ সেপ্টেম্বর দুদকে হাজির হওয়ার জন্য চ্যানেল আই টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে নোটিশ দেয়া হয়। সেই নোটিশকে চ্যালেঞ্জ করে সিকিউরিটি গার্ড মো. আবদুর রহমান তালুকদারসহ চারজন মিলে রিট করেন।

রিটকারী অন্যরা হলেন- মো. শহীদুল ইসলাম, মো. আবু বকর সিদ্দিক ও আবুল কাশেম।

২০১৭ সালের ১৪ ডিসেম্বর এ বিষয়ে হাইকোর্ট রুল জারি করেন এবং রিটকারীদের নাজেহাল না করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। ওই রুল শুনানি শেষে আজ তা খারিজ করা হয়। ফলে তদন্ত ও মামলায় কোনো বাধা নেই।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর দুদকের সহ-পরিচালক মো. আতিকুর রহমান (স্মারক নং দুদক/সজেকা/রংপুর /২৩৭৩) চ্যানেল আই টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবর নোটিশ পাঠান।

দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকায় ২০১৭ সালের ২২ আগস্ট একটি সংবাদ ‘রংপুরে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র বারিধারায় শর্টগানসহ আটক’ প্রকাশ করা হয়। পরে রংপুর কোতোয়ালি থানার ২০১৭ সালের ১৮ মে মামলা হয়। তখন জানা যায়, বিপুল সংখ্যক জাল লাইসেন্স নিয়ে অস্ত্র ব্যবহ্রত হচ্ছে। যে কারণে অস্ত্রের লাইসেন্স আছে কিনা তা যাচাই করার জন্য দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক থেকে নোটিশ পাঠানো হয়।

দুদকের নোটিশে বলা হয়, রংপুর কোতোয়ালি থানার মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে আপনার টেলিভিশন সেন্টারে নিয়োজিত ব্যক্তিবর্গের নামে ইস্যু করা আগ্নেয়াস্ত্র, আগ্নেয়াস্ত্র ক্রয়ের রশিদ ও আগ্নেয়াস্ত্রসহ দুদকে হাজির হতে বলা হচ্ছে।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর