সোমবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০   আশ্বিন ৫ ১৪২৭   ০৩ সফর ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৩৫৩

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন বিভাগে কত আসন

শিক্ষা ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫ অক্টোবর ২০১৯  

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) শেষ হয়েছে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা। এরই মধ্যে সব ইউনিটের ফলাফল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। ফলে মেধা তালিকায় টিকে থাকা শিক্ষার্থীদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু এখন কোন বিভাগে ও ইউনিটে কতটি আসন।

গাণিতিক ও পদার্থ বিষয়ক অনুষদে আসন আছে ৪১০টি। ছাত্রদের ২৩৫টি ও ছাত্রীদের ১৭৫টি। রসায়ন বিভাগে ছাত্রদের ৪০ ও ছাত্রীদের ৩০টি। পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগে ছাত্রদের ৪০ ও ছাত্রীদের ৩০টি। গণিত বিভাগে ছাত্রদের ৪৫টি ও ছাত্রীদের ৩০টি। পরিসংখ্যান বিভাগে ছাত্রদের ৩৫ ও ছাত্রীদের ৩০টি। ভূতাত্ত্বিক বিজ্ঞান বিভাগে ছাত্রদের ২০ ও ছাত্রীদের ২০টি। কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ছাত্রদের ৩০টি ও ছাত্রীদের ২০টি। পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগে ছাত্রদের ২৫টি আর ছাত্রীদের ১৫টি আসন।
 
সমাজবিজ্ঞান অনুষদে আসন সংখ্যা ৩২৬টি। ছাত্রদের ১৬৩টি ও ছাত্রীদের ১৬৩টি। সরকার ও রাজনীতি বিভাগে ছাত্রদের ৩৩টি ও ছাত্রীদের ৩৩টি। নৃবিজ্ঞান বিভাগে ছাত্রদের ২০টি, ছাত্রীদের আছে ২০টি। নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা অর্থনীতি বিভাগে ছাত্রদের ৩৫টি, ছাত্রীদের ৩৫টি। ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ছাত্রদের ৩০টি ও ছাত্রীদের ৩০টি। লোক প্রশাসন বিভাগে ছাত্রদের ২৫টি ও ছাত্রীদের ২৫টি আসন আছে।

কলা ও মানবিকী অনুষদে আসন আছে ৩৭৬ টি। ছাত্রদের ১৮৮টি ও ছাত্রীদের ১৮৮টি। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগে ছাত্রদের ৩৫ ও ছাত্রীদের ৩৫টি। জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগে ছাত্রদের ১৮টি ও ছাত্রীদের ১৮টি। বাংলা বিভাগে ছাত্রদের ৩০ ও ছাত্রীদের ৩০টি। ইংরেজি বিভাগে ছাত্রদের ৩৫ ও ছাত্রীদের ৩৫টি। ইতিহাস বিভাগে ছাত্রদের ৩০ ও ছাত্রীদের ৩০টি। দর্শন বিভাগে ছাত্রদের ২৫ ও ছাত্রীদের ২৫টি। প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে ছাত্রদের ১৫ ও ছাত্রীদের ১৫টি আসন আছে।

এই অনুষদে এইচএসসি’র শাখা অনুযায়ী আবার আলাদা আলাদা আসন বরাদ্দ রয়েছে। বিজ্ঞান শাখা: ছাত্র- ৬০, ছাত্রী- ৬০। মানবিক শাখা: ছাত্র- ৯০, ছাত্রী-৯০। ব্যবসায় শিক্ষা শাখা: ছাত্র- ২৫, ছাত্রী- ২৫। মাদরাসা ও টেকনিক্যাল শাখা: ছাত্র- ১৩, ছাত্রী- ১৩।

‘সি১’ ইউনিট (কলা ও মানবিকী অনুষদ) এ আছে ৬১টি আসন। ছাত্রদের ৩১টি ও ছাত্রীদের ৩০টি আসন।
 
নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগে ২৬টি (ছাত্র- ১৩, ছাত্রী- ১৩) এবং চারুকলা বিভাগে ৩৫টি (ছাত্র- ১৮, ছাত্রী- ১৭) আসন রয়েছে।

জীববিজ্ঞান অনুষদে ৩২০টি আসন। ছাত্রদের ১৬০টি এবং ছাত্রীদের ১৬০টি। ফার্মেসি বিভাগে ছাত্রদের- ২৫, ছাত্রীদের-২৫। প্রাণ রসায়ন ও অনুপ্রাণ বিভাগে ছাত্রদের ৩০, ছাত্রীদের ৩০। মাইক্রোরায়োলজি বিভাগে ছাত্রদের- ১৮, ছাত্রীদের-১৮,
বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ২৪টি ছাত্রদের ১২, ছাত্রীদের- ১২। উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগে ছাত্রদের ৩০, ছাত্রীদের ৩০। প্রাণিবিদ্যা বিভাগে ছাত্রদের ২৫, ছাত্রীদের ২৫। পাবলিক হেলথ অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ছাত্রদের ২০, ছাত্রীদের টি ২০ আসন রয়েছে।

বিজনেস স্টাডিজ অনুষদে আছে ২০০টি আসন। ছাত্র-ছাত্রীদের ১০০টি আসন আছে। মার্কেটিং বিভাগে আছে ৫০টি আসন। ছাত্রদের ২৫, ছাত্রীদের- ২৫। ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগে আছে ৫০টি আসন। ছাত্রদের ২৫, ছাত্রীদের ২৫। অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগে আছে ছাত্রদের ২৫, ছাত্রীদের ২৫টি আসন। ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগে ছাত্রদের ২৫, ছাত্রীদের ২৫ আসন রয়েছে।

আইন অনুষদে ছাত্রদের ৩০টি ছাত্রীদের আছে ৩০টি আসন। ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন- আইবিএ-জেইউ অনুষদে ছাত্রদের ২৫টি এবং ছাত্রীদের ২৫টি করে মোট ৫০টি আসন রয়েছে।
 
ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি-আইআইটি অনুষদে ছাত্রদের ২৮টি, ছাত্রীদের ২৮টি আসন রয়েছে।

বঙ্গবন্ধু তুলনামূলক সাহিত্য ও সংস্কৃতি ইনস্টিটিউট অনুষদে ছাত্রদের ১৫টি, ছাত্রীদের ১৫টি আসন রয়েছে।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা