শুক্রবার   ১৪ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ৩০ ১৪২৭   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৪৪৭৩

নানা নাটকীয়তা শেষে ফাটল ঐক্যফ্রন্টে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৮ নভেম্বর ২০১৮  

নানা নাটকীয়তা শেষে ফাটল ধরলো ঐক্যফ্রন্টে! অবহেলার স্বীকার হয়ে এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামাল হোসেন কোনো আসন থেকেই প্রার্থী হননি।  ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে রাজধানীর গুলশান ও ধানমন্ডির দুটি আসনে তাঁকে প্রার্থী হওয়ার জন্য প্রস্তাব করা হয়েছিল। কিন্তু সে প্রস্তাবে প্রথমে না, পরে হ্যাঁ এবং সর্বশেষ না করলেন তিনি।  কোনো আসনেই ড. কামাল হোসেনের প্রার্থী না হওয়ায় রাজনৈতিক অঙ্গনে অনেক প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

এদিকে দিনভর নাটকীয় ঘটনা ঘটেছে ২০ দলীয় জোটের শরিক বিএনপি ও জামায়াতের মধ্যে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের মনোনয়ন দেওয়া হবে কোন প্রতীকে, তা নিয়ে দফায়-দফায় সিদ্ধান্ত বদল হয়েছে। এমন শঙ্কা প্রকাশ করছেন সংশ্লিষ্ট কোনও কোনও নেতা। বিএনপি ও জামায়াতের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিভিন্ন বৈঠকে আগে কথা হয়েছিল ঐক্যফ্রন্ট যদি ক্ষমতায় আসে তাহলে ড. কামাল হোসেনই হবেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু সংসদীয় গণতন্ত্রের রীতি অনুযায়ী, সংসদ সদস্য না হলে প্রধানমন্ত্রী না হওয়ার যোগ্য হবেন না তিনি। যদিও ড. কামাল হোসেনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ তাই তিনি নির্বাচন করতে পারবেন না কিন্তু রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল মনে করছে, নির্বাচন হবে কি হবে না সে বিষয়ে অনিশ্চয়তা এবং নিজের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক আদর্শ থেকে বিচ্যুত হওয়ার ঘটনার কারণেই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ড. কামাল।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, ড. কামাল হোসেন তাঁর ঘনিষ্ঠজনদের বলেছেন, ‘সারা জীবন নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেছি, বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে নির্বাচন করেছি। এখন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার জন্য আমি মানসিকভাবে প্রস্তুত নই।’

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের ধারণা, উদীয়মান সূর্য নিয়ে নির্বাচন করলে কোনোভাবেই জিতবেন না ড. কামাল হোসেন। আর ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করলে সারা জীবনের যে অর্জন সে অর্জনই ম্লান হয়ে যাবে। ইতিমধ্যেই তাঁর ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করার সম্ভাবনা নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়ে গেছে। এসব কারণে ড. কামাল হোসেন নির্বাচন করছেন না বলে জানিয়েছে তাঁর ঘনিষ্ঠগুলো সূত্রগুলো।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর