সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০   কার্তিক ১১ ১৪২৭   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৮৭৪

ফুসফুসের অজানা যত তথ্য

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১ জানুয়ারি ২০১৯  

বাঁচতে হলে আমাদের শ্বাস-প্রশ্বাসের প্রয়োজন। এক মুহূর্তের জন্য শ্বাস-প্রশ্বাস বন্ধ হলে জীবন হবে বিপন্ন। মানবদেহের যে অবিচ্ছেদ্য অংশটি শ্বাস-প্রশ্বাসের মতো গুরুদায়িত্ব পালন করে আসছে সেটি হচ্ছে ফুসফুস। মানবদেহের এই গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের অনেক তথ্যই আমাদের অজানা। তবে আর দেরি নয় চলুন আজ জেনে নেয়া যাক ফুসফুস নিয়ে চমকপ্রদ ও মজাদার কিছু তথ্য-

১. আমাদের কি মনে হয় না যে, আমাদের সুস্থ শরীরে কখনো শ্বাস-প্রশ্বাসের ঘাটতি হয়ে থাকে কি না। কেননা আমরা গড়ে প্রতি মিনিটে প্রায় ৫৭ লিটার বাতাস গ্রহণ করে থাকি যার ফলে কখনো আমাদের বাতাস কিংবা শ্বাস প্রশ্বাসের ঘাটতি হয় না।

২. আপাত দৃষ্টিতে মনে হয় যে আমাদের দুটো ফুসফুস সমান ও সমান্তরাল। কিন্তু এমনটি নয়। আমাদের ফুসফুসের ডান অংশটি সামান্য লম্বা বাম অংশের তুলনায়। হৃদপিণ্ডকে স্থান দেয়ার জন্য আমাদের ফুসফুসের আকৃতি এমনটি হয়েছে।
 
৩. ডান পাশের ফুসফুস ৩ ভাগে বিভক্ত অথচ বাম পাশেরটি ২ ভাগে বিভক্ত।

৪. মানবদেহের ফুসফুসকে মস্তিষ্ক চালনা করে থাকে। আমাদের মস্তিষ্কই বলে দেয় যে ফুসফুস কতটুকু বাতাস গ্রহণ করবে বা কতটুকু বর্জন করবে। আমরা একটু খেয়াল করলেই বিষয়টা বুঝতে পারবো। যেমন, পানির নিচে ডুব দেয়ার সময় আমরা শ্বাস-প্রশ্বাস ইচ্ছাকৃতভাবে বন্ধ করে দেই।

৫. মাত্র একটি ফুসফুস দিয়ে স্বাভাবিক জীবনযাপন করা সম্ভব। মাঝেমধ্যে একটু সমস্যা হবে যদি অধিক পরিমাণে ব্যয়াম করা হয়ে থাকে। এছাড়া মনেই হবে না যে আপনার একটি ফুসফুস আছে নাকি দুটো!

৬. মানবদেহের অন্য অঙ্গের তুলনায় ফুসফুস একটু আলাদা, কারণ এটি পানিতে ভাসতে পারে। অন্যসকল অঙ্গ পানিতে ভাসতে পারে না। এর কারন হলো ফুসফুসে শ্বাস ত্যগ হওয়ার পরও এক লিটার বাতাস জমা থাকে যা পানিতে ভাসতে সাহায্য করে।

৭. সবাই মনে করি যে ফুসফুস একটি মাঝারি ধরনের অঙ্গ। কিন্তু এটা বেশ বড়। যদি একটি ফুসফুসের অংশ খুলে ছড়ানো হয় তাহলে তা পুরো টেনিস খেলার মাঠকে ঢেকে ফেলবে!
 
৮. ফুসফুস নিঃশ্বাসের শুধুমাত্র ৫ শতাংশ অক্সিজেন ব্যবহার করে থাকে। বাকিগুলো বের করে দেয়। এই প্রক্রিয়া ক্রমাগত চলতেই থাকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত।

৯. প্রতি ঘন্টায় আমরা প্রায় ১৭ মি.লি. পানি শ্বাসের সাথে ত্যাগ করে থাকি।

১০. আমাদের মুখের সাথে ফুসফুসের একদম সরাসরি সংযোগ রয়েছে।

১১. ফুসফুস আমাদের মেরুদণ্ডের পিছনের দিকের সুষুম্নাকান্ডের সাথে যুক্ত এবং বক্ষের হাড় দ্বারা ঢাকা। এর ফলে আমাদের ফুসফুস বেশ সুরক্ষিত অবস্থানে থাকে।

১২. শ্বাস-প্রশ্বাস বাদেও ফুসফুসের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ রয়েছে। ফুসফুস তার ৭০ শতাংশ বর্জ্য শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে ত্যাগ করে থাকে।

১৩. বাচ্চারা যখন মায়ের পেটে থাকে তখন তাদের ফুসফুস সম্পূর্ণরূপে তরলে নিমজ্জিত থাকে। তাই একটি বাচ্চা যখন জন্মলাভ করে তখন তার প্রথম শ্বাসটি নিতে প্রায় ১০ সেকেন্ডের ন্যায় সময় লাগে।
 
১৪. ফুসফুস কথা বলায় অন্যতম ভূমিকা পালন করে থাকে। এর ভেতর থেকে বাতাস না এলে আমাদের স্বরযন্ত্র কাজ করত না!

১৫. পুরো বিশ্বের ৮০ শতাংশ ফুসফুসের ক্যন্সার এর জন্য দায়ী হচ্ছে ধূমপান। ধূমপান করলে ফুসফুসে বিষাক্ত পদার্থ জমে যার ফলে এটি ঠিকমত কাজ করতে পারে না এবং শ্বাস প্রশ্বাসের প্রচুর ব্যঘাত ঘটে। তাই সকলের উচিত ধূমপান ত্যগ করা এবং আমাদের ফুসফুসকে সুস্থ রাখা।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর