রোববার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২০   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৭   ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
১৩৯

বাংলাদেশের রোল মডেল হবে কক্সবাজারের প্রধান সড়ক -কউক চেয়ারম্যান

প্রকাশিত: ১৯ অক্টোবর ২০২০  

অবশেষে কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কের কাজ শুরু হয়েছে। ১৮ অক্টোবর বিকালে সদরের খুরুশকুল রাস্তার মাথা থেকে প্রথম ধাপের কাজের সূচনা করেন কক্সবাজার উন্নয়ন কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে.কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমদ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রকল্প পিডি লে.কর্ণেল আনোয়ার উল ইসলাম। তিনি জানিয়েছেন, সড়কের খারাপ অবস্থা বিবেচনা করে শহরের হলিডের মোড় থেকে হাশেমিয়া মাদ্রাসা পর্যন্ত ৫০ ফুট প্রস্থের প্রথম পর্যায়ের কাজ খুরুশকুল রাস্তার মাথা থেকে শুরু করা হচ্ছে ।

জানাগেছে, মানুষের দূর্ভোগ লাঘবে এই সড়কটি প্রশস্তকরণ ও সংস্কারের জন্য তিন বছর আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি প্রকল্প ফাইল জমা দেন উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে.কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমদ। ওই সময় প্রকল্পটিতে ২৯৮ কোটি ১৪ লাখ ৮৪ হাজার টাকা ব্যয় ধরা হয়েছিল । পরে ২০১৮ সালে একনেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রকল্পটির অনুমোদন দেন। কিন্তু নানা জটিলতায় অত্যাধুনিক ওই সড়কটি এতদিন চূড়ান্ত অনুমোদন পায়নি। তবে কউক চেয়ারম্যানের নিরলস পরিশ্রম ও একান্ত প্রচেষ্টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুইভাগে সড়কটির অনুমোদন দেন। তারই ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে আজ খুরুশকুল রাস্তার মাথা থেকে প্রথম ধাপের কাজ শুরু হচ্ছে।

কউক জানায়, ৫ দশমিক ২ কিলোমিটার অংশে হবে এই সংস্কার ও প্রশস্তকরণের কাজ। হলিডে মোড় থেকে বাস টার্মিনাল পর্যন্ত প্রশস্ত করা হবে এই সড়কটি। সড়কের প্রশস্তকরণের পাশাপাশি দুইপাশে পথচারীদের চলাচলের জন্য ফুটপাত, ফুটওভার ব্রিজ, ড্রেন, ব্রিজ-কালভার্ট, সাইকেলওয়ে নির্মাণ করার কথাও রয়েছে। এছাড়া সড়কে সবুজায়ন, দুইপাশে সড়ক বাতি ও সিসি ক্যামেরা এবং ওয়াইফাই সংযোগ থাকবে বলে জানা গেছে।

এ নিয়ে কউক চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব:) ফোরকান আহমদ বলেন, বাংলাদেশের রোল মডেল হবে কক্সবাজারের প্রধান সড়ক। সেই লক্ষ্যেই আমরা ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়ে পথচারীদের কষ্টের কথা বিবেচনা করে বেশি ভাঙ্গা অংশ হিসেবে চিহ্নিত খুরুশকুল রাস্তার মাথা থেকে কাজ শুরু করছি। তিনি সড়ক নির্মানে মানুষের সাময়িক কষ্টের জন্য ধৈর্য্য ধারন করার আহবান জানান। এ সময় কউক চেয়ারম্যান লে.কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমদ আরও বলেন, আর এস/বিএস খতিয়ান অনুযায়ী রাস্তার দু’পাশের যেটুকু জায়গা রোডস এন্ড হাইওয়ের একোয়ার করা আছে সেই জায়গাটুকু আমরা ক্লিয়ার করবো। সব টমটমের তালিকা করা হবে। এই রাস্তা নিয়ে যেনো কোনো পলিটিক্স না হয় তিনি এ আহবানও জানান।

উল্লেখ্য, কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কটি সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীনে ছিল দীর্ঘযুগ ধরে। কিন্তু সড়কটি মানুষের জন্য কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়ালে কউক চেয়ারম্যান সড়কটির উন্নয়নের জন্য একটি হাই প্রোফাইল তৈরি করে মন্ত্রনালয়ে জমা দেন। এরপর অনুমোদন না হওয়ার আগেই তড়িঘড়ি করে সড়ক বিভাগ উক্ত সড়কটি কউককে হস্তান্তর করে। এরপর নানা জটিলতায় পড়লে সড়কটির কাজ শুরু করা সম্ভব হয়নি।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর