শনিবার   ৩১ অক্টোবর ২০২০   কার্তিক ১৫ ১৪২৭   ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৬২

খুরুস্কুল আশ্রায়ন-

বাহারছড়া হাই স্কুলের নাম পরিবর্তন হচ্ছে

প্রকাশিত: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০  

কক্সবাজার শহরের কবিতা চত্বরের ঝাউবন এলাকায় ২৩ বছর আগে প্রতিষ্ঠিত “বাহারছড়া উচ্চ বিদ্যালয়” বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। ভিন্ননামে খুরুস্কুল আশ্রয়ণ প্রকল্প এলাকায় আরেকটি হাই স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হবে। যেটি প্রতিষ্ঠার জন্য দেশের সবচেয়ে বড় আশ্রয়ণ প্রকল্প ‘খুরুস্কুল আশ্রয়ণ প্রকল্প’ এর ডিজাইন প্ল্যানে আগে থেকেই নকসা ও জমি বরাদ্দ করা ছিলো।

দেশে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর পরই শহরের বাহারছড়া উচ্চ বিদ্যালয়টিতে ‘ফ্রেন্ডশীপ’ নামক একটি এনজিও সেখানে তাদের কার্যক্রম শুরু করে। আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত ফ্রেন্ডশীপ এনজিও-টি বাহারছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে থাকার কথা রয়েছে। স্কুল ভবনটি সংস্কার করার জন্য স্কুলের আসবাবপত্র সমুহ সেখানে থাকা এনজিও ফ্রেন্ডশীপ গত ১৯ সেপ্টেম্বর সরানোর চেষ্টা করলে স্কুলের শিক্ষকেরা তাতে বাঁধা দেন বলে জানা গেছে।

বাহারছড়া উচ্চ বিদ্যালয়টি ১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠিা করা হয়। স্কুলটি ২০০২ সালে পাঠদানের অনুমতি লাভ করে এবং ২০০৬ সালে একাডেমিক স্বীকৃতি পায়। বর্তমানে স্কুলটির একাডেমিক স্বীকৃতি নবায়ন করাও আছে। জানা গেছে, স্কুলটির বাউন্ডারির ভেতরে থাকা এক একর ২০ শতক জমি বন্দোবস্তির প্রস্তাব প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। স্কুলটির প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক ছিলেন-কক্সবাজার শহরের পৌর প্রিপ্যারটরী উচ্চ বিদ্যালয়ের বর্তমান প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম। এরপর কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক বদরুল আলম বাহারছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ২য় প্রধান শিক্ষক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। বিদ্যালয়টির সর্বশেষ প্রধান শিক্ষক নুর মোহাম্মদ আইনজীবী হিসাবে কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতিতে ২০১৪ সালে যোগদান করলে স্কুলটির শিক্ষক স্বপ্না ভট্টাচার্য ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হিসাবে তখন থেকে দায়িত্ব পালন করছেন।

বাহারছড়া হাই স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আবছার স্কুলটি স্থানান্তরের বিষয়ে তাঁর নিজস্ব ফেসবুক আইডি-তে ২০ সেপ্টেম্বর রোববার বিকেলে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। ‘অবগত করণ’ শিরোনামে দেওয়া স্ট্যাটাসে তিনি স্কুলটি অন্যত্র স্থানান্তর করতে হবে বলে উল্লেখ করে বলেন, স্কুলের জমি বন্দোবস্তী প্রস্তাব অনুমোদন হওয়ার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীন। ছাত্র-ছাত্রী সংখ্যাও দিন দিন কমে যাচ্ছে। এর কারণ হচ্ছে স্কুল সংলগ্ন এলাকা অর্থাৎ পশ্চিম বাহারছড়া, সমিতি পাড়া ইত্যাদি এলাকা অতি শীঘ্রই সরকারী ব্যবস্থাপনায় স্থানান্তর হচ্ছে। স্ট্যাটাসে তিনি আরো জানান, শিক্ষকদের সম্মতিক্রমে স্কুলটি “খুরুশকুল আশ্রয়ন প্রকল্প” এলাকায় স্থানান্তর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে উদ্বিগ্ন না হওয়ার জন্য সকলের প্রতি নুরুল আবছার অনুরোধ জানিয়েছেন।

নিন্মে নুরুল আবছার এর নিজস্ব ফেসবুক আইডি-তে দেওয়া স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো :

“অবগত করণ :
==========
সম্মানিত কক্সবাজার বাসীর অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, আমাদের বাহারছড়া হাই-স্কুলটি অনিবার্য কারণে প্রথমে COVID হাসপাতালের জন্য ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে দিতে হয়েছে।
তৎ পরবর্তী সময়ে স্কুলটি অন্যত্র স্থানান্তর করতে হবে। কারণ আমাদের স্কুলের জমি বন্দোবস্তী প্রস্তাব অনুমোদন হওয়ার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীন। ছাত্র-ছাত্রী সংখ্যাও দিন দিন কমে যাচ্ছে। এর কারণ হচ্ছে স্কুল সংলগ্ন এলাকা অর্থাৎ পশ্চিম বাহারছড়া, সমিতি পাড়া ইত্যাদি এলাকা অতি শীঘ্রই সরকারী ব্যবস্থাপনায় স্থানান্তর হচ্ছে।
সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় স্কুলের শিক্ষকদের সম্মতিক্রমে আমরা “খুরুশকুল আশ্রয়ন প্রকল্প” এলাকায় স্থানান্তর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ ব্যাপারে প্রশাসন পরিপূর্ণ সহযোগিতা করছে এবং স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা স্কুল স্থানান্তরের জন্য প্রয়োজনীয় সকল সহযোগীতা করে যাচ্ছে।
এ ব্যাপারে বিন্দুমাত্র উদ্বিগ্ন না হওয়ার জন্য আমি সকলের প্রতি অনুরোধ করছি।

ধন্যবাদসহ শুভেচ্ছান্তে,
নুরুল আবছার,
সভাপতি- বাহারছড়া হাই স্কুল পরিচালনা পরিষদ কক্সবাজার।”

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর