শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১   মাঘ ৩ ১৪২৭   ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
১০৫

মুখ থেকে মুখোশ খুলে দাও

প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০২০  

তারা প্রত্যেকে রাজনৈতিক দলের নেতা। তাদের আলাদা আলাদা রাজনৈতিক দল আছে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তারা দলীয় প্রতীক নিয়ে লড়াই করে। ইসির সাথে সংলাপ করে। নির্বাচনের আগে ও পরে বড় রাজনৈতিক দলের সাথে দরকষাকষি করে জোট বাধে। নির্বাচন শেষ হলে তারা জননেতা থেকে মাওলানার কাতারে চলে আসে। যেমন মামুনুল হক খেলাফত মজলিসের মহাসচিব। তার নির্বাচনী প্রতীক দেয়াল ঘড়ি। মামুনুলের হকের মতো হেফাজতের মহাসচিব  নূর হুসাইন কাসেমীর রাজনৈতিক দল আছে। দলটির নাম জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ। এ দলের নির্বাচনী প্রতীক খেজুরগাছ। চরমোনাইয়ের পীরেরও রাজনৈতিক দল আছে। দলের নাম ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। এ দলের নির্বাচনী প্রতীক হাতপাখা। তিনশো আসনে তার দলের প্রার্থী আছে।

আওয়ামী লীগ বিএনপিতে যেমন  চিকিৎসক, প্রকৌশলী, ব্যবসায়ী, আইনজীবিরা নেতা হচ্ছেন এখানেও বিষয়টি তেমন।
শুধু নামের আগে মাওলানা থাকার কারনে আমরা সব কিছু ভুলে যাচ্ছি। অবুঝ বাঙালিরা রাজনৈতিক নেতাদের ধর্মীয় নেতা মনে করে আস্ফালন করছি।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর