মঙ্গলবার   ২৭ অক্টোবর ২০২০   কার্তিক ১১ ১৪২৭   ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৯৫৪

স্বাধীনতা বিরোধীরা এখনো ষড়যন্ত্র করছে: আইনমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯ আগস্ট ২০১৯  

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, আমাদের মধ্যে এখনো ষড়যন্ত্র আছে। তার কারণ স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি রাজাকার, আল-বদর ও আল-শামস তাদের তো কিছু লিগ্যাসি আছে। এই লিগ্যাসি দিয়েই তারা এখন ষড়যন্ত্র করছে। তারা এখন যে ষড়যন্ত্র করছে তা বাংলাদেশকে আরো ৫০ বছর পিছিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র। 

রোববার (১৮ আগস্ট) বিকেলে ঢাকায় নিবন্ধন অধিদফতর প্রাঙ্গণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, এই ষড়যন্ত্র থাকবেই। তাই এই ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে সবাইকে সজাগ থাকতেই হবে এবং ষড়যন্ত্রকে নির্মূল করতে হবে।

আইনমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতাকে হত্যার কলঙ্ক আমরা কোনো দিন ঘুচাতে পারবো না। আমরা বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেছি। এখন আমরা যদি বাংলাদেশের সব মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে পারি তাহলে বঙ্গবন্ধুর প্রতি আমাদের ঋণ কিছুটা হলেও শোধ করতে পারবো। 

তিনি বলেন, আমাদের এখন প্রধানত দুটি কাজ; একটি হচ্ছে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সজাগ থাকা ও তা প্রতিহত করা এবং অন্যটি হলো বাংলাদেশের সব মানুষের মুখে হাসি ফোটানো। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালীকরণের মাধ্যমেই কেবল এটা সম্ভব বলে তিনি মনে করেন।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু একজন স্বাধীনচেতা ও অত্যন্ত আত্মসম্মান জ্ঞান সম্পন্ন মানুষ ছিলেন। তিনি কারো সঙ্গে কখনো আপস করেননি। তিনি নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনের পথ বেছে নিয়েছিলেন। নিজের কষ্টের পথ বেছে নিয়েছিলেন এবং তিনি সেভাবেই জনগণকে উদ্বুদ্ধ করে তার কাঙ্খিত লক্ষ্যে টেনে নিয়েছিলেন। তিনি নিজের জন্য কিছুই করার চেষ্টা করেননি। যেটাই করেছেন সেটা বাংলার জনগণের জন্য করেছেন। এটাই তার মহত্ত্ব।  

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে স্বাধীন হওয়ার চিন্তাভাবনা করতে শিখিয়েছেন। আমাদেরকে স্বাধীনতা, দেশ, পতাকা ও সংবিধান দিয়ে গেছেন। শুধু তাই নয় একটা স্বাধীন রাষ্ট্রের শক্তভাবে দাঁড়ানোর জন্য যেসব আইন প্রয়োজন মাত্র সাড়ে তিন বছরে সেটা তিনি তৈরি করে দিয়ে গেছেন।
 
আইনমন্ত্রীর সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারোয়ার, নিবন্ধন  অধিদফতরের মহাপরিদর্শক খান মো. আব্দুল মান্নান, লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নরেন দাস বঙ্গবন্ধুর জীবন আলেখ্য নিয়ে আলোচনা করেন।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর