বৃহস্পতিবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২১   মাঘ ১৫ ১৪২৭   ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৬৭

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে চকরিয়ায় ট্রাফিক পুলিশের বিশেষ অভিযান

প্রকাশিত: ৫ ডিসেম্বর ২০২০  

কক্সবাজারের চকরিয়ায় সড়ক ও মহাসড়কে যানবাহনের বেপরোয়া গতি এবং দুর্ঘটনা ঠেকাতে চকরিয়া ট্রাফিক পুলিশের বিশেষ অভিযান শুরু হয়েছে। শনিবার ৫ ডিসেম্বর সকাল ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের থানা রাস্তার মোড়ে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানের সময় উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মো. তফিকুল আলম।

ট্রাফিক পুলিশ সূত্র জানা যায়, অভিযানে হেলমেটবিহীন মোটরসাইকেল চলাচল, তিনজনের অধিক যাত্রী বহনসহ নানা অপরাধে মোটরযান আইনে ৬টি মামলা দিয়েছে পুলিশ। এছাড়াও  ১৫টি বাস ও ট্রাক থেকে ২৬ হাইড্রোলিক হর্ণ অপসারণ করা হয়। 

এ সময় বিশৃঙ্খলভাবে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা বিভিন্ন যানবাহনকে নিয়ম মেনে কার্যক্রম পরিচালনা করতে বাধ্য করা হয়। রাস্তার ওপর যাত্রী ওঠানামাসহ ট্রাফিক আইন পরিপন্থী অন্যান্য কার্যাবলিও বন্ধ করা হয়। সাধারণ চালক ও মালিকদের উদ্দেশে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন সার্কেল এএসপি।

চকরিয়া ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর (টিআই) মশিউর রহমান বলেন, ‘সম্প্রতি সময়ে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে। চালকদের বেপরোয়া ও অতিরিক্ত মাত্রায় গতি এবং অসচেতনাই এর মুল কারণ। এছাড়াও সড়ক দুর্ঘটনা রোধ, অবৈধ হর্ণ অপসারণ ও টিনেজারদের বেপরোয়া মোটরসাইকেল গতি নিয়ন্ত্রণে চকরিয়া ট্রাফিক পুলিশের অভিযান শুরু করেছে। অভিযানকালে মোটরসাইকেল ব্যবহারকারীদের হেলমেট বাধ্যতামূলক করতে তাদের উৎসাহের পাশাপাশি আইনের আওতায় আনা হচ্ছে।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘বিশেষ করে উঠতি বয়সী তরুণদের হেলমেট বিহীন বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল চালানোয় দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণ করতে জোর তাগিদ দেওয়া হয়েছে। অভিযানে বেশ কিছু রেজিস্ট্রেশন বিহীন মোটরসাইকেল, হেলমেট না থাকা ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এছাড়া শ্রবণশক্তির মারাত্মক ক্ষতি করে এ ধরনের বাস ও ট্রাক থেকে হাইড্রোলিক হর্ণ অপসারণ করা হয়। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।’

চকরিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মো. তফিকুল আলম বলেন, ‘কক্সবাজার জেলা পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামানের নির্দেশে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে এ অভিযান করা হচ্ছে। সড়ক এবং মহাসড়কে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা লেগেই থাকে। তাই পুলিশ সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে বিশেষ অভিযান শুরু করেছে। পাশাপাশি হেলমেট ব্যবহার করতে মানুষকে উৎসাহিত করা হচ্ছে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট মো. ফেরদৌস, এএসআই মো. মিজানসহ পুলিশ সদস্যরা।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর