শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১   মাঘ ৩ ১৪২৭   ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
১১০

১০১০ কিঃমিঃ সাইকেল চালিয়ে টেকনাফ পৌঁছলেন ১০০ সেনা সদস্য

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০২০  

মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১১ নারীসহ ১০০ সেনা সদস্য পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া থেকে বাইসাইকেল চালিয়ে ১০১০ কিলোমিটার পাঁড়ি দিয়ে কক্সবাজারের টেকনাফে পৌঁছলেন।

মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) দুপুর ২টায় টেকনাফ মেরিন ড্রাইভস্থ জিরো পয়েন্ট (অর্থনৈতিক অঞ্চল) খুরের মুখ চত্বরে সেনাবাহিনীর উদ্যোগে মুজিববর্ষ সাইক্লিং এক্সপেডিশন-২০২০ ফ্লাগ ইন অনুষ্ঠান রামু সেনাবাহিনীর লে.কর্ণেল মোঃ শফিউল আলম পরিচালনায় সম্পন্ন হয়েছে।

এ দলটি মেজর আসিফ মাহমুদের নেতৃত্বে গত  ৮ নভেম্বর তেতুলিয়ার বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট হতে যাত্রা শুরু করে দীর্ঘ ২৪ দিন পর টেকনাফ জিরো পয়েন্ট এসে শেষ হয়।

এদেরকে স্বাগত জানান- রামু ১০ সেনানিবাসের আটিলারী বিগ্রেড কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ওমর সাদি।

এসময় তিনি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর উপর অর্পিত দায়িত্ব যেখানে যখন যেভাবে প্রয়োজন হবে দেশের সার্বিক কল্যাণে জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে সফলতার সাথে পালন করা হবে। দেশের সরকার প্রধানের যে কোনও উদ্যোগকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী অত্যন্ত দৃঢভাবে, সচলভাবে এবং সফলভাবে সম্পন্ন করবে।

তিনি আরও বলেন, সরকার ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত সময়কালকে মুজিব বর্ষ হিসেবে উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে । তারই অংশ হিসেবে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ পর্যন্ত সাইকেলে দীর্ঘ পথ পাড়ি দেবার দুঃসাহসিক প্রয়াস গ্রহণ করা হয়েছে।

সম্পূর্ণভাবে জাতির পিতার জন্মশত বর্ষের চেতনাকে ধারণ করার জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সকল ফরমেশনের ১০০ জন সাইক্লিষ্টের অংশগ্রহণে এই বছরকে আরো তাৎপর্যপূর্ণ করে তোলার প্রচেষ্টা গ্রহণ করা হয়েছে। একই সাথে একাত্তরের চেতনাকে মহিমান্বিত করে তোলার জন্য ৭১ জন সাইক্লিষ্ট এই অপরাজেয় সাইক্লিং এক্সপেডিশন চলমান রাখবে।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর