রোববার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২০   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৭   ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
৮৫

২০৩০ সালের মধ্যে ছয় লেনের মেট্রোরেল নির্মাণের পরিকল্পনা সরকারের

প্রকাশিত: ২৫ অক্টোবর ২০২০  

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে ছয় লেনের মেট্রোরেল নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। এর মধ্যে দুটি রুট নিমার্ণের কাজ শিগগিরই শুরু করতে যাচ্ছে সরকার। এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৪ হাজার কোটি টাকার মতো।

শনিবার (২৪ অক্টোবর) সকালে মন্ত্রীর সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে ব্র্যাক-বিশ্বব্যাংকের যৌথ উদ্যোগে নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন কাদের।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আগামী দুই থেকে তিন বছরের মধ্যে বাংলাদেশের সড়ক নেটওয়ার্কে বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধিত হবে। বর্তমানে যোগাযোগ ব্যবস্থায় যে পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে তা ৩০ বছর আগে করা উচিত ছিল। আগের সরকারগুলো সেসব করেনি। বর্তমান সরকার সেতু, মেট্রোরেল, চারলেন, ছয়লেন মহাসড়কসহ ভবিষ্যতের জন্য নানামুখী পরিকল্পনা হাতে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি জানান, উন্নত বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে চালু হয়েছে রোড সেফটি অডিট।

কাদের বলেন, পুরুষদের তুলনায় মহিলা গাড়ি চালকরা অধিক সাবধানী ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। সরকারও মহিলা গাড়ি চালক তৈরির সুযোগ বাড়াচ্ছে।

আলোচনায় ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ বলেন, নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে জনসচেতনতা, প্রশিক্ষিত গাড়িচালকের বাড়ানোসহ নানামুখী কাজ করতে হবে। ব্র্যাক এ কাজে নিবিড়ভাবে অংশগ্রহণ করতে উদ্যোগ নিয়েছে। বিশ্বব্যাংক এক্ষেত্রে সহযোগিতা করবে।

বিশ্বব্যাংকের সড়ক যোগাযোগ বিভাগের বিশ্লেষক সন্দীপন বসু বলেন, অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশের মতো বাংলাদেশও ২০৩০ সালের মধ্যে সড়ক দুর্ঘটনা অর্ধেকে নামিয়ে আনতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। এখন পর্যন্ত নেয়া উদ্যোগকে ইতিবাচকই বলা যায়। মনে রাখতে হবে সড়ক দুর্ঘটনায় কেবল প্রাণহানি বা অঙ্গহানির মতো ঘটনায় ঘটে না। অর্থনীতি ও উন্নয়নের মানও প্রশ্নবিদ্ধ হয়, বাধাগ্রস্ত হয়।

আলোচনায় বাংলাদেশে বিশ্বব্যাংকের আবাসিক প্রতিনিধি দানদান শ্যান, ব্র্যাকের পরিচালক আহমেদ নাজমুল হুসেইন অংশ নেন।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর