মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

কক্সবাজার বার্তা
সর্বশেষ:
৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা ‘২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার’ রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে অ্যাঞ্জেলিনার চিঠি ডিসেম্বরে নির্মাণ শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রো রুট গোলদিঘির পাড়ে নির্মিত হচ্ছে আধুনিকমানের মারকাজ মসজিদ ২০২২ সালের মধ্যে ট্রেন চলবে কক্সবাজারে কক্সবাজারের উন্নয়নে উদ্যোগ নিলো জাতিসংঘ দ্বিতীয় পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মহেশখালী-কুতুবদিয়ায়! এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ কাজ ১০০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে কক্সবাজারে ২৫ মেগা প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে কক্সবাজার উন্নয়নে শীর্ষে কক্সবাজার
১৯

৩০ বছর পর কাঁচা চামড়া রপ্তানির সুযোগ

প্রকাশিত: ৩১ জুলাই ২০২০  

কোরবানির পশুর চামড়ার দামে বিপর্যয় ঠেকাতে ত্রিশ বছর পর কাঁচা চামড়া রপ্তানির সুযোগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। ফলে ‘কেস টু কেস’ ভিত্তিতে চামড়া রপ্তানির অনুমতি দেওয়া হবে। রবিবার চামড়ার মূল্য নির্ধারণের সময় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছিলেন, তারা যদি দেখেন, গতবারের মতো এবারও চামড়ার দাম পাওয়া যাচ্ছে না, সে ক্ষেত্রে চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে ঈদ পর্যন্ত অপেক্ষা করে ঝুঁকি নিতে পারেনি সরকার। তার আগেই প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে। 

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, চামড়া শিল্প খাতের উন্নয়নে সুপারিশ প্রদান ও কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের লক্ষ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক শিল্পমন্ত্রীর সভাপতিত্বে গঠিত টাস্কফোর্সের সিদ্ধান্ত ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ২০ জুলাই সভার সিদ্ধান্ত এবং স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে প্রতীয়মান হয় আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে কাঁচা চামড়ার চাহিদা ও সরবরাহ ব্যবস্থায় স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য রপ্তানি নীতি ২০১৮-২০২১ এর অনুচ্ছেদ ৯.১৫ এ কাঁচা ও ওয়েট-ব্লু চামড়া রপ্তানিতে বিদ্যমান নিষেধাজ্ঞা  শিথিল করা প্রয়োজন।

 বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জানায়, নতুন প্রজ্ঞাপনের ফলে ঢালাওভাবে কাঁচা চামড়া রপ্তানি করা যাবে না। কেউ যদি রপ্তানি করতে চায় তবে তাকে মন্ত্রণালয়ে আবেদন করতে হবে। সেই আবেদন বিবেচনা করে মন্ত্রণালয় কর্তৃক গঠিত কমিটির সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে কেস টু কেস ভিত্তিতে কাঁচা চামড়া রপ্তানির অনুমতি দেওয়া হবে।

জানা গেছে, ১৯৯০ সালে বাংলাদেশ থেকে প্রাথমিকভাবে প্রক্রিয়া করা পশম ছাড়ানো (ওয়েট ব্লু) চামড়া রপ্তানি বন্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। ওই সময়  দেশে মূল্য সংযোজনের লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে ট্যানারি শিল্পগুলোর বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত না হওয়ায় বিদেশি ক্রেতারা মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার পর গত কয়েক বছর ধরে কাঁচা চামড়ায় বিপর্যয় চলছে।

কক্সবাজার বার্তা
কক্সবাজার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর