বুধবার   ২১ এপ্রিল ২০২১   বৈশাখ ৭ ১৪২৮   ০৯ রমজান ১৪৪২

স্মরণীয় বিজয় সমাবেশ আজ

নিউজ ডেস্ক

কক্সবাজার সৈকত

প্রকাশিত : ০৮:০৪ এএম, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯ শনিবার

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয়সহ টানা তৃতীয়বারের সরকার গঠনকে স্মরণীয় করে রাখতে শনিবার বিজয় সমাবেশ করতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দুপুর আড়াইটায় জমকালো আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে এ মহাসমাবেশ।
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, অভুতপূর্ব এই নির্বাচনের পর প্রথম আনুষ্ঠানিক এই কর্মসূচিকে জনসমুদ্রে রূপ দিতে চায় ক্ষমতাসীনরা। এ লক্ষ্যে যথেষ্ট প্রস্তুতিও নিয়েছে আওয়ামী লীগ। এর অংশ হিসেবে রাজধানী ঢাকার পাশাপাশি মানিকগঞ্জ, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, সাভার, আশুলিয়া ও মুন্সীগঞ্জ জেলার নেতাকর্মীকে মহাসমাবেশে নিয়ে আসার জন্য একাধিক প্রস্তুতি ও বর্ধিত সভা করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনসহ ঢাকা এবং আশপাশের দলীয় এমপিদের মিছিল নিয়ে মহাসমাবেশে যোগ দেয়ার নির্দেশও এরইমধ্যে দেয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানকে প্রাণবন্ত ও সাবলীল করে তুলতে সমাবেশ শুরু হওয়ার আগে দুপুর ১২টা থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে। যাতে দেশবরেণ্য শিল্পী, কলাকুশলী ও তারকারা উপস্থিত থাকবেন। এরপর দুপুর আড়াইটার দিকে সমাবেশস্থলে আসবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর আগমনের সময় গান গাইবেন জনপ্রিয় শিল্পী মমতাজ। এছাড়াও গান করবেন, রফিকুল আলম, ফাহমিদা নবী, আঁখি আলমগীর, কল্পনা মজুমদার প্রমুখ। প্রধানমন্ত্রীর আসন গ্রহণের পর ‘জিতবে এবার নৌকা’ গানের শিল্পীরাও সমবেত কণ্ঠে গান পরিবেশন করবেন। সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিবেদন করে ‘আপনার জন্য একটি নতুন সময়ের ইঙ্গিত’ কবিতা আবৃত্তি করবেন কবি রাশেল আশেকী। এরপর শুরু হবে বক্তব্য। থাকবে দেশ পরিচালনায় প্রধানমন্ত্রীর নানা স্বপ্ন ও পরিকল্পনার কথা।

বিশেষ করে দুর্নীতি ও মাদক নির্মূলে যে যুদ্ধ, তাতে সবাইকে ঝাঁপিয়ে পড়ার নির্দেশনা আসবে এ সমাবেশ থেকে। এছাড়া সমাবেশে ২০২১, ২০৪১ ও ২১০০ সহ ডেল্টাপ্লান সম্পর্কেও আলোচনা করবেন শেখ হাসিনা।

মূল অনুষ্ঠান পরিচালনা করবেন দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন। সমাবেশে মঞ্চে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। মহাসমাবেশে আওয়ামী লীগ ছাড়াও মহাজোটের শরিক বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী, আইনজীবী, সাংবাদিক, কবি-সাহিত্যিক, পেশাজীবী, সংস্কৃতি ও বিনোদন জগতের প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঘুরে দেখা যায়, সমাবেশস্থল ঘিরে ছোট-বড় অর্ধশতাধিক নৌকা ও বৈঠাসহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গবন্ধু কন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ছবি সম্বলিত ফেস্টুনে সুসজ্জিত করা হয়েছে।

আর বিজয়ের এই মহাসমাবেশকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীও রাজধানীজুড়ে কঠোর নিরাপত্তাবলয় ও সতর্ক অবস্থানে থাকবে। এতে উৎসব চলার সময় সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও আশপাশের কয়েকটি সড়কে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এদিন শাহবাগ থেকে মৎস্যভবন পর্যন্ত সড়কে লোকজনের চলাচল বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ।